কখনো ইচ্ছে হয়

কখনো ইচ্ছে হয় সাড়াটি বেলা
ভেজাব এই দুটি মন ঐ নীল জোছনায়,
নিঃশব্দ তুমি আর নিঃশব্দ আমি
কেটে যাবে অনন্ত কাল হৃদয় মোহনায়।।
আবেগ জড়ানো রংঙ্গীন সুতোয় গাথা
মাঝে মাঝে একটু দুটো কথা
বলবে আমায় তুমি নিবিড় বন ছায়
ছুয়ে যাবে এ মন সুরের ঝরনা ধারায়
নিঃশব্দ তুমি আর নিঃশব্দ আমি
কেটে যাবে অনন্ত কাল হৃদয় মোহনায়।
কখনো তুমি একটু ছুয়ে দিলে
অনুভব টুকু রাখব বুকে তুলে
এ হৃদয়ে শুধু সপ্ন বুনে যায়
বেচে আছি যেন তোমারি অবহেলায়
নিঃশব্দ তুমি আর নিঃশব্দ আমি
কেটে যাবে অনন্ত কাল হৃদয় মোহনায়।
নিঃশব্দ তুমি আর নিঃশব্দ আমি
কেটে যাবে অনন্ত কাল হৃদয় মোহনায়।

তুমি রোজ বিকেলে আমার বাগানে

তুমি রোজ বিকেলে আমার বাগানে
ফুল নিতে আসতে
জানিনা তুমি ফুল না আমাকেই
বেশি ভালবাসতে
প্রতিদিন তুমি দেখতে আমায়
গোলাপের আড়ালে লুকিয়ে,
যখনই চোখে চোখ পড়তো
লজ্জায় যেতে শুধু পালিয়ে।
কি ছিল তোমার মনে
কি ছিল তোমার মনে
পারিনি তা আজো জানতে ।
তুমি রোজ বিকেলে আমার বাগানে
ফুল নিতে আসতে
জানিনা তুমি ফুল না আমাকেই
বেশি ভালবাসতে ।
স্বপ্নের মত গেলে কোথায়
অজানাই হারিয়ে কে জানে
নিরবেই চির দিনটাই তো
স্বপনের বাঁশী বাজে এ প্রাণে
পারিনি আমি আজো
পারিনি আমি আজো
সেই স্মৃতির ইতি টানতে
তুমি রোজ বিকেলে আমার বাগানে
ফুল নিতে আসতে
জানিনা তুমি ফুল না আমাকেই
বেশি ভালবাসতে ।

নীলাঞ্জনা

নীলাঞ্জনা
ঐ নীল নীল চোখে চেয়ে দেখ না
তোমার ঐ দুটি চোখে
আমি হারিয়ে গেছি
আমি বোঝাতে তো কিছু পারিনা।।
বিরহ ব্যাথাতে এ মন ভেঙ্গে যায়
না পাওয়ার আঁধারে খুঁজেছি তোমায়
কতগুলো ফাগুন গিয়েছে ফিরে
আশাগুলো কেঁদেছে তোমার দ্বারে
আজ সব ব্যাথা ভুলে যাবো
চেয়ে দেখো না
তোমার ঐ দুটি চোখে
আমি হারিয়ে গেছি
আমি বোঝাতে তো কিছু পারিনা
নীলাঞ্জনা
বহুদিন পরে এসেছে মধু মাস
তোমার যত সুখ সেতো আমার সন্ন্যাস
মেঘের ডানায় রূপের সোনালী ছায়া
প্রেমে ভরা চোখে সুখের নেই সীমানা
সেই সুখ চোখের নীড়ে আমায়
সুখি করো না
তোমার ঐ দুটি চোখে
আমি হারিয়ে গেছি
আমি বোঝাতে তো কিছু পারিনা
নীলাঞ্জনা

সত্যি বলছি

সত্যি বলছি তোমাকে আর ভালোবাসি না
তোমার জন্য মিছেমিছি রাতও জাগি না।
সত্যি বলছি তোমায় নিয়ে আর স্বপ্ন দেখি না,
তোমার জন্য মিছেমিছি কাব্য লিখি না।
এখন তোমার জন্য আমার কোন সময় নেই,
এখন আমি ভালোবাসি শুধু আমাকেই।
এখন আমি ভালোবাসি শুধু আমাকেই।
সত্যি বলছি তোমাকে আর ভালোবাসি না
তোমার জন্য মিছেমিছি রাতও জাগি না।
এখন আমার সঙ্গী আকাশ, রাতের ধ্রুবতারা,
বৃষ্টি সঙ্গী করে ভালো, আছি তোমায় ছাড়া।
সময় পেলে উদাস মনে দেখি জোছনা,
তোমার জন্য মিছেমিছি কাব্য লিখি না।
সত্যি বলছি তোমাকে আর ভালোবাসি না
তোমার জন্য মিছেমিছি রাতও জাগি না।
এখন আমার সঙ্গী গিটার, সুরের ডানা মেলা
ইচ্ছে সঙ্গী করে ভালো, আছি তোমায় ছাড়া।
সময় পেলে উদাস মনে দেখি জোছনা,
তোমায় নিয়ে মিছেমিছি স্বপ্ন দেখি না
সত্যি বলছি তোমাকে আর ভালোবাসি না
তোমার জন্য মিছেমিছি রাতও জাগি না।
সত্যি বলছি তোমায় নিয়ে আর স্বপ্ন দেখি না,
তোমার জন্য মিছেমিছি কাব্য লিখি না।
এখন তোমার জন্য আমার কোন সময় নেই,
এখন আমি ভালোবাসি শুধু আমাকেই।
এখন আমি ভালোবাসি শুধু আমাকেই।

শাওনগগনে ঘোর ঘনঘটা

শাওনগগনে ঘোর ঘনঘটা, নিশীথযামিনী রে।
কুঞ্জপথে, সখি, কৈসে যাওব অবলা কামিনী রে।
উন্মদ পবনে যমুনা তর্জিত, ঘন ঘন গর্জিত মেহ।
দমকত বিদ্যুত, পথতরু লুন্ঠিত, থরহর কম্পিত দেহ
ঘন ঘন রিমঝিম, রিমঝিম রিমঝিম, বরখত নীরদপুঞ্জ।
শাল-পিয়ালে তাল-তমালে নিবিড়তিমিরময় কুঞ্জ।
কহ রে সজনী, এ দুরুযোগে কুঞ্জে নিরদয় কান
দারুণ বাঁশী কাহে বজায়ত সকরুণ রাধা নাম।
মোতিম হারে বেশ বনা দে, সীঁথি লগা দে ভালে।
উরহি বিলুন্ঠিত লোল চিকুর মম বাঁধহ চম্পকমালে।
গহন রয়নমে ন যাও, বালা, নওলকিশোরক পাশ।
গরজে ঘন ঘন, বহু ডর পাওব, কহে ভানু তব দাস।।

ঐ দূর থেকে দূরে

ঐ দূর থেকে দূরে
যেতে চাই অজানাতে
যেখানে নেই কোন ভাবনা
সেই অনাবিল সুখ আমি পেতে চাই।।
ফেলে আসা দিনগুলো
আমায় পিছু ডাকে
তবুও পারিনা কেন যে ফিরে যেতে।
মায়া ভরা এ পৃথিবী
কত স্বপ্নীল আশা জাগে।।
দিনগুলো পেড়িয়ে যায় কিছু স্মৃতি ফেলে
ইচ্ছে করে সোনালী দিনগুলোয় ফিরে যেতে।
যদি পেতাম এই দিনগুলি
ছোটবেলার সেই ক্ষনগুলি
বসে আমি ভাবি সারাক্ষন।।